আজ ২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১১ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

রামগড় সীমান্তে ভারসাম্যহীন ব্যাক্তিকে ভারতীয় বিএসএফ এর পুশ-ইন এর চেষ্টা আবারো রুখে দিলো বিজিবি

বেলাল হোসাইন,খাগড়াছড়ি:

খাগড়াছড়ির রামগড়ে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে ফেনী নদী দিয়ে আবারও এক মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যাক্তিকে অবৈধভাবে পুশ-ইন এর চেষ্টা ব্যর্থ করে দিয়েছে স্থানীয় এলাকাবাসী ও রামগড়৪৩ বিজিবির সদস্যরা।

স্থানীয়রা জানান,শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪ টায় রামগড় সীমান্তের থানা ঘাট এলাকার ফেনী নদী দিয়ে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের সাব্রুম থেকে ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ মানসিক ভারসাম্যহীন এক পুরুষকে বাংলাদেশে পুশ-ইন এর চেষ্টা করে। রামগড়ের স্থানীয়রা বিষয়টি দেখে স্থানীয় ক্যাম্পে খবর দিলে ৪৩বিজিবির জোয়ানরা নদীর পাড়ে অবস্থান নিয়ে পুশ-ইন চেষ্টা ব্যর্থ করে দেয়।বিএসএফ এর পুশ-ইনের চেষ্টা ব্যর্থ করে দিলে দুই দেশে বিজিবি বিএসএফ এর মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্ট হয় এবং দুইদেশে সীমান্তে সৈন্য বৃদ্ধি করা হয়।

বিজিবির প্রতিরোধের মুখে মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তিকে বিএসএফ ফেরত নিলেও দুই দেশের সীমান্তে উত্তেজনা এড়াতে জরুরীভাবে বিজিবি-বিএসএফের সেক্টর কমান্ডার পর্যায়ে  রাত সাড়ে আটটায় মহামুনি বিওপি আওতাধীন ভারত ও বাংলাদেশের মৈত্রী সেতুর নিচে শূন্য লাইন সীমান্ত পিলার ২২১৫/৯ এস এর নিকট বৈঠক শুরু হয়ে রাত নয়টা পনেরো মিনিটে শেষ হয়।বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে ১০ সদস্যের দলের নেতৃত্ব দেন বিজিবির সেক্টর কমান্ডার কর্নেল জি এইচ এম  সেলিম হাসান  পিএসসিজি এবং ভারতের পক্ষে১০ সদস্যের দলের নেতৃত্ব দেন বিএসএফ উদয়পুর সেক্টরের  ডিআইজি জামিল আহমেদ। বৈঠকশেষে বিজিবি প্রতিনিধিদল সাংবাদিকদের জানান,বৈঠকে অজ্ঞাত ভারসাম্যহীন ব্যক্তিকে বিএসএফ গ্রহণ করে নেয় পরবর্তীতে ভারত ঐ ব্যাক্তিটিকে বাংলাদেশী প্রমাণ  করতে পারলে বিজিবি তাকে গ্রহণ করে নিবে এবং উভয় দেশের  সীমান্তে মোতায়েনকৃত বিএসএফ -বিজিবি সদস্যদের প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত হয়।

উল্লেখ্য এর আগে, গত ২ এপ্রিল সীমান্তের একই এলাকা দিয়ে মানসিক এক ভারসাম্যহীন নারীকে অবৈধ ভাবে পুশ-ইন করে শূণ্য রেখায় রেখে বিশ দিন মানবেতর জীবনযাপন করতে বাধ্য করে বিএসএফ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর